সরকারি চাকুরির বেতন স্কেলগুলো জেনে রাখুন

বাংলাদেশের শিক্ষিত প্রজন্মের কাছে সবার আগে যে চাকুরির প্রাধান্য থাকে তা হল সরকারি চাকুরী। সরকারি চাকরির বেতন স্কেল, গ্রেডিং সিস্টেম, শ্রেণিকরণ,অন্যান্য ভাতা ও সুবিধা রয়েছে ব্যাপক যা একজন চাকুরিজীবির কাছে অত্যন্ত আকর্ষণীয়।  অনেকে বলে থাকেন সরকারি চাকুরি হল সোনার হরিন পাওয়ার মত, কথাটা অনেকখানি সত্য কারণ ব্যাপক প্রতিযোগিতার মাধ্যমে একটি সরকারি চাকুরী পাওয়া বেশ দুঃসাধ্য ব্যাপার। আজকের আর্টিকেল পড়লে আপনারা যারা সরকারি চাকুরি প্রত্যাশী আছেন তারা সরকারি চাকুরির বেতন স্কেল গুলো সম্পর্কে জানতে পারবেন। চলুন তাহলে মূল প্রসঙ্গে আসা যাক, সরকারি চাকুরির বেতন স্কেল গুলো জেনে রাখুন।

যাই হোক আগে সরকারি চাকুরী চার শ্রেণীর অন্তর্ভুক্ত ছিল কিন্তু এখন বিশ গ্রেডে চারটি শ্রেণীতে ভাগ করা হয়েছে। জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫ অনুযায়ী বিশটি গ্রেড করা হয়েছে।  শ্রেণীকরণের পাশাপাশি টাইম স্কেল ও সিলেকশন গ্রেড ও বাদ দেওয়া হয়েছে। কারণ কেউ টাইম স্কেল পায় কেউ পায় না। কেউ সিলেকশন গ্রেড পায়, বেশিরভাগ কর্মচারী সিলেকশন গ্রেড পায় না। এখন সবার জন্যই বেতন বাড়বে, সবার জন্যই ইনক্রিমেন্ট হবে। নতুন পে- স্কেলে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন বাড়বে চক্রবৃদ্ধি হারে এবং এই সুবিধা সবাই ভোগ করবে।

অষ্টম জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫ পাশ হওয়ার পর সরকারি চাকুরিতে শ্রেণী বিভাজন আর নেই। এখন সবার পদমর্যাদার ঠিক হয় গ্রেড দিয়ে।

প্রথম গ্রেডের বেসিক বেতন ৭৮০০০ টাকা এবং বিশ তম গ্রেডের বেতন ৮২৫০টাকা। আর বিসিএস ক্যাডাররা নবম গ্রেডে ২২০০০ টাকা বেতন নিয়ে চাকরিতে প্রবেশ করে। এখানে বলে রাখা ভালো যে, ১ থেকে ১৩ তম গ্রেডে কোটা প্রযোজ্য নয়। এ সকল গ্রেডে চাকুরি পেতে হলে মেধার মাধ্যমে আসতে হবে।

প্রথম গ্রেডের মূল বেতন ৭৮০০০ হাজার টাকা সুপারিশ করা হলেও এই স্কেলের বেতন-ভাতাসহ অর্থের পরিমাণ দাঁড়ায় ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা। একইভাবে সর্বনিম্ন বেতন স্কেল ৮ হাজার ২৫০ টাকা হলেও সব মিলে দাঁড়ায় ২০ হাজার ১০ টাকা।

সরকারি চাকুরির বেতন স্কেল গুলো নিচে দেয়া হলঃ

গ্রেড                                                বেতন স্কেল

গ্রেড-১                                           ৭৮০০০

গ্রেড-২                                            ৬৬০০০

গ্রেড-৩                                              ৫৬৫০০

গ্রেড-৪                                               ৫০০০০

গ্রেড-৫                                               ৪৩০০০

গ্রেড-৬                                               ৩৫৫০০

গ্রেড-৭                                                ২৯০০০

গ্রেড-৮                                               ২৩০০০

গ্রেড-৯                                                ২২০০০

গ্রেড-১০                                              ১৬০০০

গ্রেড-১১                                               ১২৫০০

গ্রেড-১২                                               ১১৩০০

গ্রেড-১৩                                               ১১০০০

গ্রেড-১৪                                                ১০২০০

গ্রেড-১৫                                                ৯৭০০

গ্রেড-১৬                                                ৯৩০০

গ্রেড-১৭                                                 ৯০০০

গ্রেড-১৮                                                ৮৮০০

গ্রেড-১৯                                                 ৮৫০০

গ্রেড-২০                                                  ৮২৫০

বেতন বৃদ্ধিঃ

যারা নিচের দিকে আছেন তাদের বেতন বৃদ্ধির হার বেশি হবে। বেতন কাঠামোর ২০টি  গ্রেডের মধ্যে ৬ থেকে ২০ নম্বর পর্যন্ত ৫ শতাংশ হারে, ৫ম গ্রেডে বাড়বে ৪ দশমিক ৫ শতাংশ হারে, ৩ ও ৪ নম্বর গ্রেডে বাড়বে ৪ শতাংশ হারে, ২য় গ্রেডে বাড়বে ৩ দশমিক ৫ শতাংশ হারে এবং ১ নম্বর গ্রেডে ৭৮ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

বেতন সমন্বয়ঃ

অষ্টম পে স্কেল অনুযায়ী মূল্যস্ফীতির উপর নির্ভর করে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন সমন্বয় করা হবে। স্থায়ী পে -কমিশন অনুযায়ী প্রতিবছর ৫% বেতন বৃদ্ধি পেত। এখন কোন বছর বেতন বাড়বে, আবার কোন বছর বাড়বে না কারণ হিসাবে দেখানো হয়েছে মূল্যস্ফীতি ৫ শতাংশের কম হলে বেতন বাড়বে না। কিন্তু যে বছর মূল্যস্ফীতি ৫ শতাংশের বেশি হবে সে বছরই বেতন সমন্বয় হবে। 

আশা রাখি, যাদের সরকারি চাকুরীর বেতন স্কেল গুলো জানার আগ্রহ আছে এই আর্টিকেলটি তাদের উপকারে আসবে। সবশেষে সরকারি চাকুরি প্রার্থীদের জন্য রইল শুভকামনা।